ট্রায়াল’ দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর

ট্রায়াল’ দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর

নানা টালবাহানার পর দক্ষিণেশ্বর রুটে মেট্রোর ট্রায়াল শুরু হতে চলেছে। পরের বুধবার অর্থাৎ ২৩শে ডিসেম্বর এই ট্রায়াল রান হবে বলে জানানো হয়েছে।
মঙ্গলবার মেট্রো রেলের এক আধিকারিক জানান, প্রস্তুতি প্রায় শেষ। নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত মেট্রোর ট্রায়াল চলবে। ২৩শে ডিসেম্বর থেকে এই ট্রায়াল শুরু হওয়ার কথা। তবে এটি একদিনের ট্রায়াল নাকি সপ্তাহখানেক চলবে সেবিষয়ে চূড়ান্ত কোনও তথ্য মেলেনি।
সোমবার এই ট্রায়াল রান নিয়ে মেট্রো ভবনে এক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়। উপস্থিত ছিলেন মেট্রো রেলের জেনারেল ম্যানেজার মনোজ যোশী ও অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। বৈঠকের পরে মেট্রোর জেনারেল ম্যানেজার জানান আগামী সপ্তাহে দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর ট্রায়াল শুরু করার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিছু লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। তা পূরণ করার চেষ্টা করা হবে।
উল্লেখ্য, এর আগে জানানো হয়েছিল ১৫ই নভেম্বর এই ট্রায়াল রান চালু হতে পারে। মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত অতিরিক্ত চার কিমি লাইনের কাজ প্রায় শেষ। ডিসেম্বরেই যে কোনও সময়ে এই লাইনে ট্রেন বাণিজ্যিকভাবে চলতে শুরু করবে বলে খবর। ১৫ নভেম্বর দক্ষিণেশ্বর মেট্রোতে সেল্ফ অপারেটেড ইঞ্জিন দিয়ে ট্রায়াল রান চালানো হবে বলে জানানো হয়।
তিন মাস আগেই দক্ষিণেশ্বর মেট্রো স্টেশনের কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। এই পরিষেবা চালু হলে হুগলি ও হাওড়ার একটা বড় অংশের মানুষ যাঁরা নিয়মিত মধ্য, উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতায় কাজে যান তাঁদের বড় সুবিধা হয়ে যাবে। এখন মেট্রো ধরতে গেলে ডানলপ হয়ে নোয়াপাড়া পৌঁছতে হয়। এই রুট চালু হয়ে গেলে সেই সময় আর নষ্ট করতে হবে না। কলকাতার প্রথম যে মেট্রো রুট সেই পথেরই এক্সটেনশন হচ্ছে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর ট্রেন ধরতে হলে কোনও একটি জংশন স্টেশনে নেমে ট্রেন বদল করতে হবে যাত্রীদের।মেট্রোয় চেপে এবার কালীপুজো দিতে যাওয়া যাবে দক্ষিনেশ্বর মন্দিরে। নিউ গড়িয়া থেকে মাত্র এক ঘণ্টায় পৌঁছে যাওয়া যাবেন দক্ষিণেশ্বর। ভাড়া মাত্র ৩০ টাকা। বর্তমানে দক্ষিণ শহরতলির প্রান্তিক স্টেশন থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত মেট্রোর ভাড়া ২৫ টাকা। এই রুটের ট্রেন দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত গড়ালে যাত্রীদের গুনতে হবে অতিরিক্ত পাঁচ টাকা।
নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত বর্ধিত রুটে দুটি স্টেশন হয়েছে। একটি বরাহনগর ও অন্যটি দক্ষিণেশ্বর। নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বরের দূরত্ব ৪.২ কিলোমিটার। এই রুটে বরানগর ও দক্ষিণেশ্বর স্টেশন দুটি পরিষেবা দেওয়ার জন্য এখন পুরোপুরি তৈরি। জানা গিয়েছে, নোয়াপাড়া থেকে সাত মিনিটেই পৌঁছে যাওয়া যাবে দক্ষিণেশ্বরে।
মেট্রো রেল ও রেল বিকাশ নিগম লিমিটেড বা আরভিএনএলের যৌথ উদ্যোগে ট্রায়াল চলবে। কবি সুভাষ থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত এতদিন মেট্রো চলছিল। এবার তা আরও চার কিমি বাড়িয়ে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত করা হয়েছে।

News Desk

News Desk

প্রাসঙ্গিক বিষয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *