সমস্ত বেসরকারি হাসপাতালে শামিল হতে হবে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে

রাজ্যের সমস্ত বেসরকারি হাসপাতালকে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে বাধ্যতামূলকভাবে সামিল হতে হবে। চিকিৎসা খরচ নিয়ে তাদের আপত্তির বিষয়টি পর্যালোচনা করতে মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এর নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হবে বলে আজ রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওই কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে বেসরকারি হাসপাতালগুলির চিকিৎসা খরচ ধার্য করা হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি জানিয়েছেন।তিনি বলেন, ২০১৬-১৭ সালে যখন প্রকল্পের সূচনা হয়েছিল, তখন চিকিৎসার খরচের জন্য একটি মূল্য ধার্য করা হয়েছিল। এখন রাজ্যের ১০ কোটি মানুষই প্রকল্পের আওতায় আসায় নতুন করে মূল্য নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রোগী এবং হাসপাতাল কারো স্বার্থ ক্ষুণ্ণ না করে খরচের ক্ষেত্রে সামঞ্জস্য বজায় রেখেই এই নতুন চিকিৎসা খরচ ধার্য করা হবে বলে তিনি জানান। বিরোধীদের সমালোচনার জবাব দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাস্থ্যসাথী’-র জন্য রাজ্যের কোষাগার থেকে বাড়তি ২,৫০০ কোটি টাকা খরচ করতে হচ্ছে। কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনাকে ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে তুলে ধরা হচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। তবে রাজ্য সরকারের যদি সামান্যতম ভুল থাকে তা তিনি সংশোধন করে নিতে প্রস্তুত বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন।

News Desk

News Desk

প্রাসঙ্গিক বিষয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *