২০২১ মরশুমের জন্য নারকোলের শাঁসের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে অনুমোদন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর পৌরহিত্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার অর্থনৈতিক বিষয়ক কমিটির বৈঠকে ২০২১ মরশুমের জন্য নারকোলের শাঁসের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য অনুমোদিত হয়েছে।

ভালো মানের শাঁস যেগুলি মিলিং কোপরা বলা হয় তার দাম ২০২০ সালে কুইন্টাল পিছু ৯৯৬০ টাকা ছিল,  ২০২১ মরশুমের জন্য ৩৭৫ টাকা বাড়িয়ে কুইন্টাল পিছু ১০ হাজার ৩৩৫ টাকা করা হয়েছে। যে শাঁসগুলি বল কোপরা হিসেবে পরিচিত তার ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ২০২০ সালে ছিল কুইন্টাল পিছু ১০ হাজার ৩০০ টাকা। ২০২১ মরুশুমের জন্য তা ৩০০ টাকা বাড়িয়ে কুইন্টাল পিছু ১০ হাজার ৬০০ টাকা করা হয়েছে। সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে এই নারকোলের শাঁস উৎপাদনের খরচের দিক বিবেচনা করে মিলিং কোপরার ক্ষেত্রে ৫১.৮৭ শতাংশ ও বল কোপরার ক্ষেত্রে ৫৫.৭৬ শতাংশ বেশি উৎপাদন ব্যয়ের নিরিখে কৃষকদের হাতে আসবে। কৃষি ক্ষেত্রে ব্যয় ও মূল্য সংক্রান্ত কমিশন (কমিশন ফর এগ্রিকালচারাল কস্টস অ্যান্ড প্রাইসেস- সিএসিপি)-র সুপারিশ ক্রমে এই অনুমোদন করা হয়েছে।

সরকার ২০১৮-১৯ সালের বাজেটে ঘোষণা করেছিল কৃষিকাজে ব্যয়ের দেড়গুণ অর্থ ন্যূনতম সহায়ক মূল্য হিসেবে নির্ধারিত হবে। ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকের আয় দ্বিগুণ করার জন্য সব ধরণের গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে, যার মাধ্যমে কৃষক ন্যূনতম ৫০ শতাংশ লাভ তুলতে পারেন।   

ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল কো-অপারেটিভ মার্কেটিং ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া লিমিটেড (নাফেড) ও ন্যাশনাল কো-অপারেটিভ কনজিউমার ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া লিমিটেড (এনসিসিএফ) নারকেল উৎপাদিত রাজ্যগুলিতে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের মাধ্যমে শস্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় স্তরে কাজ করবে।  

২০২০ মরশুমে সরকার ৫০৫৩.৩৪ টন বল কোপরা ও ৩৫.৫৮ টন মিলিং কোপরা কৃষকদের থেকে সংগ্রহ করেছিল। এরফলে ৪৮৯৬ জন কৃষক উপকৃত হয়েছিলেন।

News Desk

News Desk

প্রাসঙ্গিক বিষয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *