এবার প্রচারে মহাগুরু

এবার প্রচারে মহাগুরু

বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন মহাগুরু। তবে এখনও সেভাবে পুরোদমে রাজ্যে ভোটের প্রচার শুরু করেননি মিঠুন চক্রবর্তী। বিজেপি নেতাদের সঙ্গে সব সময় যোগাযোগ রেখে চলেছেন মিঠুন। ইতিমধ্যেই রাজ্যের ভোটার হয়েছেন তিনি। বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীর মুখ হতে পারেন ‘মিঠুন’, এমনই চর্চা রাজনতিক মহলে। আগামী ২৫ মার্চ থেকে রাজ্যে পুরোদমে ভোটের প্রচারে নামতে চলেছেন মহাগুরু। মঞ্চ তৈরি। বিজেপি শীর্ষ নেতারা মিঠুন চক্রবর্তীকে বাংলার ভোটের প্রচারে পুরোদমে নামানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন। তবে আগে থেকে নির্ধারিত ব্যস্ত শুটিং সিডিউলে কাটছাঁটে কিছু সমস্যা ছিল। বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ব্যস্ত সিডিউলে কাটছাঁট করে ফেলেছেন মিঠুন চক্রবর্তী। সব কিছু ঠিকঠাক চললে আগামী ২৫ মার্চ থেকেই রাজ্যে পুরোদমে ভোটের প্রচার শুরু করে দিতে পারেন তিনি। কোন কোন জেলায় তিনি প্রচারে যাবেন, তাও ঠিক করে ফেলেছে বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব। মিঠুনকে প্রচারের ক্ষেত্রে একেবারে সামনের সারিতে এনে নির্বাচনী ময়দানে শাসক তৃণমূল ও বিরোধী বাম-কংগ্রেসকে টেক্কা দিতে তৎপর গেরুয়া শিবির। বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথম দফার ভোটের আগেই রাজ্যে ভোটের প্রচারে নেমে পড়বেন মিঠুন চক্রবর্তী। ২৫ মার্চ থেকেই বিজেপির প্রচারে নামছেন মিঠুন চক্রবর্তী। বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পঃ মেদিনীপুরের বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রে বিদেপি প্রার্থীদের সমর্থনে প্রচার করবেন মিঠুন। শালতোড়া, মানবাজার, কেশিয়াড়িতেও দলের হয়ে নির্বাচনী সভা করার কথা রয়েছে মিঠুন চক্রবর্তীর। বাংলার ভোট এবার আট দফায়। একমাত্র বাংলাতেই সবচেয়ে বেশি সময় ধরে চলবে নির্বাচনী প্রক্রিয়া। ২৩৪ আসনের তামিলনাড়ুতেও এক দফায় ভোটগ্রহণ হবে। তবে পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন হতে চলেছে আট দফায়। বাংলা সহ পাঁচ রাজ্যেই ভোট গণনা ২ মে। পশ্চিমবঙ্গে প্রথম দফার ভোট ভোট ২৭ মার্চ। এই দফায় ভোট হবে ৩০টি আসনে। দ্বিতীয় দফার ভোট ১ এপ্রিল। ৩০টি আসনে হবে ভোট গ্রহণ।তৃতীয় দফায় ৬ এপ্রিল ৩১ টি আসনে ভোট হবে। চতুর্থ দফায় ১০ এপ্রিল ৪৪টি আসনে ভোটগ্রহণ হবে। পঞ্চম দফায় ৪৫টি আসনে ভোট হবে ১৭ এপ্রিল। ষষ্ঠ দফায় ভোট হবে ২২ এপ্রিল। সপ্তম দফায় ভোট গ্রহণ হবে ২৬ এপ্রিল ও অষ্টম তথা শেষ দফায় ভোট হবে ২৯ এপ্রিল।

News Desk

News Desk

প্রাসঙ্গিক বিষয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *